করোনা থেকে বাঁচতে আপনার করণীয়

করোনাভাইরাস Coronavirus (কোভিড-১৯), যেই রোগটিকে এখন বিশ্ব মহামারী হিসেবে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯), একটি সংক্রামক রোগ যা সদ্য আবিষ্কৃত সার্স ও মার্স n-Cov ভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট। বয়স্ক ব্যক্তিরা এবং কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ, ডায়াবেটিস, দীর্ঘস্থায়ী শ্বাসযন্ত্রের রোগ এবং ক্যান্সার রোগীদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সব থেকে বেশি। সাধারণত শুষ্ক কাশি ও জ্বরের মাধ্যমেই শুরু হয়। সুতরাং, প্রথম উপসর্গ দেখা দেয় শ্বাস প্রশ্বাসে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ভাইরাসটির ইনকিউবেশন পিরিয়ড ১৪দিন পর্যন্ত স্থায়ী থাকে। তবে কিছু কিছু গবেষকের মতে এর স্থায়িত্ব ২৪-৩০ দিন পর্যন্ত থাকতে পারে।

ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের কি করণীয়?

– নিজেকে অন্তত ১৪ দিনের জন্য ঘরবন্দী করে ফেলতে হবে। কোভিড-১৯ ভাইরাস রেস্পারেটরি ড্রপলেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে ইদানিং এই ভাইরাসের কমিউনিটি বা লোকাল ট্রান্সমিশনও লক্ষ করা গেছে। কাজেই কোয়ারেন্টিন বা ঘরে নিজেকে আলাদা করে ফেলতে হবে।

– বার বার সাবান কিংবা হ্যান্ড স্যানিটাইজারের মাধ্যমে হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে।

– আপাতত হাত মেলানো বা মুসাফা করা থেকে বিরত থাকুন। কেননা, এক্ষেত্রে কমিউনিটি ট্রান্সমিশনের মাধ্যমে ভাইরাস আপনার থেকে কিংবা অন্যদের থেকে আপনার কাছে ছড়িয়ে পরতে পারে।

– মুখ, নাক, চোখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন। এই ভাইরাসের প্রবেশপথ হচ্ছে আপনার মুখমণ্ডল।

– প্রয়োজন ছাড়া কোনোমতেই বাহিরে যাওয়া উচিত হবে না। অবশ্যই মাস্ক পরিধান করবেন যদি আপনি ভাইরাস অথবা হাঁচি-কাশিতে আক্রান্ত হন। মাস্ক ব্যবহার শেষে মাঝখান দিয়ে কেটে বা ছিঁড়ে নির্দিষ্ট ময়লার বিনে ফেলতে হবে।

– হাঁচি-কাশি দেওয়ার সময় মুখে রুমাল বা টিস্যু দিয়ে ঢেকে নিতে হবে। অথবা, আপনার কনুই দিয়ে ঢেকে নিতে হবে।

– ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ খাবার ও পানি পান বেশি বেশি করতে হবে। এছাড়া প্রতিদিন নিয়ম করে খেজুর (আজোয়া), মধু কিংবা কালোজিরা খাওয়ার অভ্যাস করতে পারেন।

– আপনার বিছানা, ব্যবহৃত জিনিসপত্র ও বাসা যথারীতি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। কেননা, এই করোনাভাইরাস আয়রন, প্লাস্টিকের মাধ্যমে দ্রুত ছড়ায়।

– পাবলিক প্লেস, গণ জমায়েত, মিটিং-মিছিলে কোনোভাবেই অংশগ্রহণ করা ঠিক হবে না। এখানে কমিউনিটি বা লোকাল ট্রান্সমিশনের সম্ভাবনা শতভাগ।

– সর্বোপরি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেওয়া বিধান অনুযায়ী চলতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল তথ্য অবশ্যই যাচাই করে নিতে হবে।

সাধারণ লক্ষণ বা উপসর্গ নিয়ে সরাসরি না এসে বাসায় থেকেই আইইডিসিআরের হটলাইনে যোগাযোগ করে উপদেশ ও পরামর্শ পাওয়া যাবে। করোনাভাইরাস সম্পর্কে যেকোনো পরামর্শ বা উপদেশের জন্য উল্লেখিত হটলাইনে যোগাযোগের অনুরোধ জানানো হয়েছে : ৩৩৩, ০১৯৪৪৩৩৩২২২, ০১৪০১১৮৪৫৫১; ০১৪০১১৮৪৫৫৪; ০১৪০১১৮৪৫৫৫; ০১৪০১১৮৪৫৫৬; ০১৪০১১৮৪৫৫৯; ০১৪০১১৮৪৫৬০; ০১৪০১১৮৪৫৬৮; ০১৯২৭৭১১৭৮৫; ০১৯৩৭০০০০১১; ০১৯২৭৭১১৭৮৪ এবং ০১৯৩৭১০০১১।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইন নম্বর হচ্ছে-১৬২৬৩।

Copyright © All rights reserved | Treevaly by AF themes.